• 08 April, 2022
  • 0 Comment(s)
  • 187 view(s)
  • লিখেছেন : APDR

প্রেস বিজ্ঞপ্তি



গতকাল (০৭/০৪) ব্যাংকশাল কোর্টে মাওবাদী সন্দেহে সম্প্রতি গ্রেপ্তার হওয়া রাজনৈতিক বন্দি জয়িতা দাশের হাজিরা ছিল। রাজ্য সরকার আগেই জয়িতাকে রাস্ট্রদ্রোহিতা সহ বিভিন্ন ধারায় অভিযুক্ত করেছিল। গতকাল সরকারপক্ষ জয়িতার উপর  সন্ত্রাসদমন আইন ইউএপিএ (UAPA) এর বিভিন্ন ধারা চাপানোর আবেদন জানালে বিচারক সিদ্ধার্থ কাঞ্জিলাল তা মঞ্জুর করেন। ফলে সিডিশন, আইপিসি-র বিভিন্ন ধারা সহ UAPA --র বিভিন্ন ধারায় অভিযুক্ত করা হোল জয়িতা দাশ। অর্থাৎ  জামিন না দিয়ে  যত বেশিদিন সম্ভব তাঁকে জেলে আটক রাখার ব্যবস্থা করল রাজ্য সরকার। 

প্রসঙ্গত, ময়দানে পাওয়া ব্যাগে মাওবাদী পোস্টার ইত্যাদি পাওয়া গেছে আর তার সাথে নাকি জয়িতা যুক্ত - এরকম হাস্যকর সাজানো মামলায় জয়িতাকে প্রথমে সিডিশনে গ্রেপ্তার, পরে ইউএপিএ চাপানো হলো। ( সেকশনঃ ১৬/১৮/১৮বি/২০/৩৮/৩৯)  ব্যাগ পাওয়া গেছে ময়দানে আর জয়িতা দাশকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে উত্তর ২৪ পরগণার জাগুলি থেকে! বুঝতে অসুধিধা হয় না সবটাই সাজানো,  পরিকল্পিত।

জয়িতা ছাড়া প্রতীক ও হাসিবুর নামে আরও দুজনকে মাওবাদী সন্দেহে মুর্শিদাবাদ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।সংবাদে প্রকাশ তাঁদেরও এই মামলায় যুক্ত করা হয়েছে।  এর আগে সুন্দরবন এলাকার বকুলতলা থানা ও বোলপুর থানা এলাকা থেকে মাওবাদী সন্দেহে গণ- আন্দোলনের কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

সব মিলিয়ে আমাদের সন্দেহ, পশ্চিমবঙ্গ সরকারও কেন্দ্রের অপারেশন সমাধান ও প্রহার কর্মসূচি কার্যকরী করার কর্মসূচী নিয়েছে।  এই কর্মসূচির মূল কথা হল, ২০২২ সালের মধ্যে  দেশ থেকে মাওবাদীদের শেষ করে দেওয়া।দেশের প্রধান প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে মতাদর্শগত পার্থক্য থাকতেই পারে।  কিন্তু কোন সংগঠনকে অসাংবিধানিকভাবে ধ্বংস করে দেওয়ার উদ্যোগ  একটা চরম ফ্যাসিবাদী পরিকল্পনা। ফ্যাসিবাদী বিজেপির ঘোষিত বিরোধী রাজ্য সরকার কেন্দ্রের এই ফ্যাসিবাদী কার্যক্রমে সামিল হলে তা হবে চরম উদ্বেগের। আপত্তির। ভারতের যোজনা কমিশন 'মাওবাদী সমস্যা'কে গভীর  সামাজিক- অর্থনেতিক সমস্যা হিসাবে দেখার পরামর্শ দিয়েছিল। তাতে কর্নপাত না করে মাওবাদী ধরার নামে সমস্ত ভিন্নমত,  প্রতিবাদী কন্ঠস্বরকে স্তব্দ করে দেওয়ার এ এক গভীর ষড়যন্ত্র। 

আমরা রাজ্যের সমস্ত গণতান্ত্রিক মানুষজনকে আবেদন জানাচ্ছি,  কেন্দ্র ও রাজ্যের অপারেশন সমাধান- প্রহার কার্যকরী করার সমস্ত উদ্যোগকে বিরোধিতা করুন। জয়িতা দাশ সহ জেল বন্দি সকল রাজনৈতিক ও প্রতিবাদী গণআন্দোলনের কর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে সোচ্চার হোন। এরাজ্য সহ সারা দেশে ইউএপিএ, সিডিশন এর মত ভয়ংকর কালা আইন প্রয়োগ বন্ধ করা হোক। এনআইএ, ইউএপিএ, সিডিশন বাতিল করা হোক।

রঞ্জিত শূর, 

সাধারণ সম্পাদক, 

এপিডিআর 

0 Comments

Post Comment






Eternal Vigilance is the Price of Liberty
All Rights Reserved APDR
About us | Contact Us